হরিশ্চরে ট্রেনের ধাক্কায় ২জনের মৃত্যু

20

পেরুল উত্তর সংবাদদাতা ।।  লালমাই উপজেলার হরিশ্চর রেলক্রসিংয়ে (ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথ) চট্টগ্রাম অভিমুখি কর্ণফুলি ট্রেনের ধাক্কায় দুইজন মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়েছে। ২৯ আগষ্ট দুপুরে এ দূর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন লালমাই উপজেলার পেরুল উত্তর ইউনিয়নের উৎসব পদুয়া গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে রনি (২৫) ও শানিচোঁ গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে নজরুল ইসলাম (২৭)। আহত হয়েছেন মোটরসাইকেল চালক পেরুল দক্ষিণ ইউনিয়নের পূর্ব পেরুল গ্রামের কবির হোসেন (২৭)। নিহত রনি পেশায় একজন সিএনজি চালক এবং নজরুল স্থানীয় হরিশ্চর চৌরাস্তা বাজারে কনফেকশনারি ও পান-সিগারেটের ব্যবসা করতেন।

প্রত্যক্ষদর্শী জাকির, সাফায়েত ও হাবিব জানান, রবিবার দুপুর অনুমান সোয়া ১টায় একটি পালসার মোটরসাইকেল যোগে হরিশ্চর-ভুশ্চি সড়ক হয়ে তিন বন্ধু হরিশ্চর চৌরাস্তা যাওয়ার উদ্দেশ্যে হরিশ্চর অবৈধ রেলক্রসিং পার হচ্ছিলেন। ওই সময় হঠাৎ চট্টগ্রাম অভিমুখি কর্ণফুলি ট্রেন মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল আরোহী রনির মৃত্যু হয়। অন্য মোটরসাইকেল আরোহী নজরুল কে গুরুতর আহত অবস্থায় লাকসামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন। মোটরসাইকেল চালক কবির হোসেন কে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়া হয়েছে।

লালমাই উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আবদুল মোতালেব দুইজন মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, দূর্ঘটনা কবলিত মোটরসাইকেলটির আধা কিলোমিটার সামনে আমার গাড়ী ছিলো। ট্রেন আসার আগেই আমি ক্রসিং পার হয়েছিলাম। মূলত রেলসড়কটির দু’পাশে গাছের ডালপালা ও বনজঙ্গল বেড়ে উঠায় ট্রেন দেখা যায় না।

লাকসাম রেলওয়ে জংশন স্টেশন মাষ্টার সাহাবুদ্দীন রবিবার বিকাল ৩টায় মোবাইল ফোনে জানান, ট্রেন দূর্ঘটনার বিষয়ে আমাদের কাছে কোন তথ্য নেই।