লাকসামে সিজার ছাড়াই একসাথে ৫ সন্তানের জন্ম

185

লাকসাম প্রতিনিধি ।।  কুমিল্লার লাকসামে একসাথে ৫টি সন্তান প্রসব করে চাঞ্চল্য সৃষ্টি করলেন এক প্রসূতি। ওই প্রসূতির নাম শারমিন আক্তার (২৫)। তিনি উপজেলার উত্তরদা ইউনিয়নের পোলইয়া খন্দকার বাড়ির মাদরাসা শিক্ষক হাফেজ মাওলানা মিজানুর রহমানের স্ত্রী। বুধবার (১২ আগস্ট) দুপুরে লাকসাম জেনারেল হসপিটালে স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় তিনি একে একে ৫টি সন্তান প্রসব করেন। এদের মধ্যে ৩টি ছেলে ও ২টি মেয়ে। মা-সন্তান সুস্থ থাকলেও ওজন কম হওয়ায় আরো উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদেরকে কুমিল্লা হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।
লাকসাম জেনারেলের হসপিটালের ব্যবস্থাপক এমদাদুল হক জানান, ওইদিন সকালে প্রসব ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন শারমিন আক্তার। হাসপাতালের গাইনী বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের তত্বাবধানে দুপুরে কোনোরকম সিজারিয়ান ছাড়াই একে একে ৫ সন্তান জন্ম নেয়। বর্তমান মা এবং সন্তানেরা সুস্থ রয়েছে।
এদিকে, নবজাতকগুলোর পিতা হাফেজ মাওলানা মিজানুর রহমান জানান, বিয়ের একবছর পর তাদের প্রথম সন্তান জন্ম নিলেও মারা যায়। বর্তমানে একসাথে এ পাঁচ সন্তান জন্ম লাভে আনন্দিত হয়ে তিনি সবার কাছে জন্য দোয়া চান।
হাসপাতালের গাইনি ডাক্তার লতিফা আহামেদ লতা বলেন, স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় বাচ্চাগুলোর জন্ম হয়েছে। তবে ওজন কম হওয়ায় আরো উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদেরকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু বিভাগে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়।