লাকসামে ডাঃ লতাসহ ২ চিকিৎসকের করোনা পজিটিভ

1141

লালমাই বার্তা ডেস্ক ।। লাকসাম জেনারেল হাসপাতালের গাইনি কনসালটেন্ট ডা: লতিফা আহমেদ লতা ও লাকসাম মেডিকেল সেন্টারের মেডিকেল অফিসার ডা: মইন উদ্দীন স্বাস্থ্য সেবা দিতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ৩০ মে দু’জনের রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, উপসর্গ দেখা দিলে ডা: লতিফা আহমেদ লতা গত ২৭ মে বুধবার নিজ কর্মস্থল নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দেন। এরপর ৩০ মে তার রিপোর্ট পজেটিভ আসে। তিনি রবিবার পর্যন্ত লাকসাম জেনারেল হাসপাতালে গাইনি রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন বলে জানা গেছে। নিয়মিত সিজারও করেছেন। এখবরে এই চিকিৎসকের রোগীসহ জেনারেল হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে করোনা আতংক তৈরি হয়েছে। তার বাসা লাকসাম বাইপাস এলাকার আপস টাওয়ারে বলে জানা গেছে। ১ জুন রাত ১০টা পর্যন্ত তার বাসা, কর্মস্থল জেনারেল হাসপাতাল লকডাউন করা হয়নি। তার পরিবারের অন্যদেরও নমুনা সংগ্রহ করা হয়নি।

এদিকে জ্বর হওয়ায় ডা: মইন উদ্দীন গত ২৭ মে লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দেন। এরপর ৩০ মে তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। তিনি লাকসামের আজগরা ইউনিয়নের বড়বাম গ্রামের হাফেজ মাওলানা গোলাম সারোয়ারে ছেলে।  ডা: মইন উদ্দীন দাবী করেন, তিনি সুস্থ হয়ে উঠছেন।

লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: মো: আবদুল আলী বলেন, ডা: লতিফা আহমেদ লতা নাঙ্গলকোটে কর্মরত। পজিটিভ কিনা আমরা জানি না। নাঙ্গলকোট থেকে আমাদের কাছে কোন তথ্য দেয়নি।

তিনি আরো জানান, ১ জুন পর্যন্ত লাকসামে মোট আক্রান্ত ৭১ জন। মারা গেছে ১ জন। সুস্থ হয়েছেন ১৩ জন।