ভুলইনে খামার ব্যবসায়ীকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ

লালমাই থানায় মামলা

168

ভুলইন দক্ষিণ সংবাদদাতা ।। পূর্ব বিরোধের জের ধরে লালমাই উপজেলার ভুলইন দক্ষিণ ইউনিয়নের ভুলইন বড় বাড়ীর মৃত তনু মিয়ার ছেলে মুরগি ও গরুর ফার্মের মালিক দেলোয়ার হোসেন (৩৫) কে হত্যা চেষ্টা করার অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় দেলোয়ারের স্ত্রী নাজমা বেগম বাদী হয়ে এজাহারভুক্ত ৭জনহ অজ্ঞাতনামা ৩/৪ জনের বিরুদ্ধে লালমাই থানায় মামলা (নং ০৫, তাং ১৩/০৭/২০২১ইং) দায়ের করেছেন।
মামলার বিবরনে জানা যায়, পূর্ববিরোধের জের ধরে গত ৬ জুলাই রাত অনুমান ১১ টায় ভুলইন বড় বাড়ীর আলী হোসেনের ছেলে রুবেল হোসেন (২৫), মোহাম্মদের ছেলে রাব্বী (১৯), রঙ্গু মিয়ার ছেলে খোকন (২৫), আবদুল হাকিমের ছেলে আলী আহাম্মদ (৫০), মোহাম্মদ (৪৫), মোহাম্মদ হোসেনের মেয়ে আইরিন আক্তার (১৯) ও ফজলুল হকের স্ত্রী রমিজা বেগম (৫০)সহ অজ্ঞাত নামা ৩/৪ জন পরিকল্পিতভাবে খামার ব্যবসায়ী দেলোয়ার হোসেনকে মাথায় রাম দা দিয়ে আঘাতসহ মারধর করে। স্বামীকে রক্ষায় দেলোয়ারের স্ত্রী নাজমা এগিয়ে আসলে তাকেও মারধর করা হয়। ওই সময় সন্ত্রাসীরা নাজমার গলায় থাকা স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়।
খবর পেয়ে গ্রামবাসী এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পরে প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় রক্তাক্ত অবস্থায় দেলোয়ার হোসেন কে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দেলোয়ার হোসেন বলেন, অর্থনৈতিক লেনদেনের বিষয়ে মিথ্যা স্বাক্ষী দিতে রাজি না হওয়ায় সন্ত্রাসীরা আমাকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে হামলা করেছিল। আমার মাথায় ১৪টি সেলাই লেগেছে। ঘটনার কয়েকদিন পরে আমার খামারে রক্ষিত বেশকিছু খাদ্যের বস্তা, মোটর চুরি করেছে হামলাকারীরা এবং কিছু মুরগির বাচ্চা মেরে ফেলেছে। আমরা থানা পুলিশের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। পুলিশই তদন্ত করে ব্যবস্থা নিবে।