ব্যক্তিগত অর্থে মিজান মজুমদারের সড়ক সংস্কার

23

 জহিরুল ইসলাম জহির।।  প্রতিবছর বর্ষাকালে গ্রামীণ সড়কগুলো কর্দমাক্ত হয়ে যায়। অনেক ক্ষেত্রে পুরনো পাকা সড়কেও গর্তের সৃষ্টি হয়। জনভোগান্তি বেড়ে যায়। জনচলাচলে বিঘœ ঘটে। জনভোগান্তি কমাতে ইউপি চেয়ারম্যানরাও প্রতি বছর পরিষদের ১% থেকে একটা থোক বরাদ্দ রেখে দেন সড়ক সংস্কারের জন্য। সরকারি অর্থায়নে ইটের সুরকি বা রাবিশ দিয়ে সাময়িক সংস্কারের এই কর্মকান্ডে জনপ্রতিনিধিদের ভোটের রাজনীতিতে প্রভাব পড়তো। গ্রামীণ সড়ক সংস্কারের কারনে হারানো জনপ্রিয়তা ফিরে পেতো ইউপি চেয়ারম্যান মেম্বাররা। ১০ বছর আগেও লালমাই উপজেলার সকল ইউনিয়নে এই চিত্র দেখা যেতো। অথচ অজ্ঞাত কারনে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যানদের এমন সংস্কার কার্যক্রমে দেখা যায় না।

সরকারি টাকায় গ্রামীণ সড়ক সংস্কার কর্মকান্ড থেকে যেখানে ইউপি চেয়ারম্যানরা সরে এসেছেন সেখানে নিজের ব্যক্তিগত অর্থায়নে সড়ক সংস্কার কাজ করে প্রশংসিত হয়েছেন লালমাই উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও লালমাই উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মজুমদার। চলতি বর্ষা মৌসুমে তিনি উপজেলার ২৫টি কাঁচা সড়ক ও পুরনো পাকা সড়ক সংস্কার করেছেন। মিজান মজুমদারের হয়ে সড়ক সংস্কার কর্মকান্ডগুলো পরিচালনা করেন তাঁর ব্যক্তিগত সহকারি ও ছাত্রলীগ নেতা শিশুল বড়–য়া।

সংস্কার করা উল্লেখযোগ্য সড়ক গুলো হলো, বাগমারা দক্ষিণ ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের চাঁদ কলমিয়া সড়ক, বাগমারা উত্তর ইউনিয়নের চেঙ্গাহাটা সড়ক, বাকই উত্তর ইউনিয়নের জয়শ্রী উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্র সংলগ্ন সড়ক, মোহনপুর জাবেদের বাড়ীর সড়ক, রসুলপুর সড়ক, মোহনপুর মাদ্রাসা সড়ক, বেলঘর দক্ষিণ ইউনিয়নের খিলপাড়া পূর্বপাড়া সড়ক, বেলঘর উত্তর ইউনিয়নের বোড়ইন জাফরপুর সড়ক, তুলাতুলী সড়ক, পেরুল দক্ষিণ ইউনিয়নের জাফরপুর মধ্যমপাড়া সড়ক, দোশারীচোঁ উত্তর পাড়া সড়ক, সমেষপুর সড়ক, ভাটরা উত্তর পাড়া সড়ক, ভুলইন দক্ষিণ ইউনিয়নের কাঁচিয়া পুকুরিয়া বারাইপুর সড়ক, কলমিয়া মন্দির সংলগ্ন সড়ক, পেরুল উত্তর ইউনিয়নের আটিটি মধ্যমপাড়া সড়ক, আটিটি পূর্ব পাড়া সড়ক, মাতাইনকোট পূর্ব পাড়া সড়ক, মাতাইনকোট পশ্চিম পাড়া সড়ক, হাড়গিলা সড়ক, চৌকনন্দী কাঁচা সড়ক, শ্বেরপুর আবু জাফরের বাড়ী সংলগ্ন সড়ক, শ্বেরপুর দক্ষিণ পাড়া সড়ক, কামারকুয়া দক্ষিণ পাড়া সড়ক, ভুলইন উত্তর ইউনিয়নের কিসমত চলুন্ডা সড়ক।

গ্রামীণ উন্নয়নের বিষয়ে খোঁজ খবর রাখা শিক্ষানুরাগী মোঃ নাসির উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, গ্রামীণ সড়কের উন্নয়ন ও সংস্কার করা ইউপি চেয়ারম্যান মেম্বারদের দায়িত্ব। ব্যক্তিগত অর্থায়নে সড়ক সংস্কার করে লালমাই উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মজুমদার প্রকৃত জনসেবকের কাজ করেছেন। তবে এমন সংস্কার কার্যক্রমে ইউপি চেয়ারম্যানদের সম্পৃক্ত করা জরুরী।

লালমাই উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মজুমদার বলেন, মানুষের কল্যাণ করার জন্যই মাননীয় অর্থমন্ত্রী আমাকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দিয়েছিলেন। তাই গত ৩ বছরে আমি মানুষের পাশে থেকে কাজ করার চেষ্টা করেছি। আগামীতেও লালমাইবাসীর পাশে থাকবো। ইনশাল্লাহ।