বাগমারা হাসপাতাল কে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ঘোষনা দিতে মন্ত্রণালয়ে চিঠি

অর্থমন্ত্রী আ.হ.ম মুস্তফা কামাল এমপির সিদ্ধান্তে

26

স্টাফ রিপোর্টার।।  দীর্ঘ অপেক্ষা ও বঞ্চনার পর ২০১৭ সালে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন ও লাকসামের ১টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত হয় লালমাই উপজেলা ও লালমাই থানা। পরবর্তীতে সরকারের প্রায় সকল দপ্তরের স্বতন্ত্র বিভাগের কার্যক্রম চালু হলেও লালমাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রতিষ্ঠা হয়নি। লালমাই উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের নিয়ন্ত্রণ থেকে যায় কুমিল্লা সদর দক্ষিণ ও লাকসাম স্বাস্থ্য কর্মকর্তার হাতে।

করোনাকালে লালমাইবাসীর জরুরী চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে গত ২৫ এপ্রিল অর্থমন্ত্রী আ.হ.ম মুস্তফা কামাল এমপির উদ্যোগে ও আবুল খায়ের গ্রুপের সহায়তায় বাগমারা ২০ শয্যা হাসপাতালে ২টি আইসিইউসহ ১২টি সেন্ট্রাল অক্সিজেন শয্যা স্থাপন করা হয়। চালু করা হয় ২৪ ঘন্টা জরুরী স্বাস্থ্য সেবা। হাসপাতালের আরএমও ডাঃ আনোয়ার উল্যাহসহ সকল চিকিৎসক ও নার্সরা আন্তরিকভাবে করোনা রোগীদের সেবা দিতে থাকেন।

কিন্তু লালমাই উপজেলা তথা বাগমারা হাসপাতালে সরকারি কোন অর্থ বরাদ্দ না থাকায় অক্সিজেন সিলিন্ডার রিফিল, করোনার নমুনা সংগ্রহ ও টিকা কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে কিছুটা সমস্যা দেখা দেয়। অক্সিজেন সংকটের কারনে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন একজন প্রবাস ফেরত যুবক ও জরুরী বিভাগে একজন নারীর মৃত্যু হয়।

এ খবরে লালমাই উপজেলার প্রবাসী, রাজনীতিবিদসহ কয়েকটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হাসপাতালকে অর্ধশতাধিক অক্সিজেন সিলিন্ডার অনুদান হিসেবে দেয়। স্বেচ্ছাসেবীরা গ্রামে গ্রামে করোনা ও শ্বাসকষ্ট রোগীদের ফ্রী অক্সিজেন সেবা দেওয়া শুরু করে। অক্সিজেন সংকট নিরসনে যখন মানবিকভাবে সবাই বাগমারা হাসপাতালের পাশে দাঁড়ায় ঠিক তখনই হাসপাতাল পরিদর্শন বা সহায়তা না করে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা লালমাই উপজেলার গণটিকা কার্যক্রম নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নেন। এতে নতুন করে বিপাকে পড়ে টিকা গ্রহীতারা।

সম্প্রতি লন্ডন থেকে দেশে ফিরলে অর্থমন্ত্রী আ.হ.মুস্তফা কামাল এমপিকে বাগমারা হাসপাতালের শয্যা সংকট, অক্সিজেন সংকট ও স্বতন্ত্র লালমাই উপজেলা প্রতিষ্ঠার বিষয়ে অবহিত করেন কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম সারওয়ার এবং লালমাই উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মজুমদার। মন্ত্রী বিষয়টি আমলে নিয়ে তাঁর এপিএস কেএম সিংহ রতন কে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম করতে নির্দেশ দেন।

এর প্রেক্ষিতে গত ৯ আগষ্ট লালমাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার অজিত দেব বাগমারা ২০ শয্যা হাসপাতালকে অস্থায়ীভাবে লালমাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ঘোষনা করতে, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার পদসহ অন্যান্য পদ সৃজন (সংশ্লিষ্ট অর্থনৈতিক কোড ও বাজেট বরাদ্দসহ) জনবল নিয়োগের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে জেলা প্রশাসক বরাবর একটি চিঠি (০৫.৪২.১৯১২.০৩৭.০০.০০৪.২১-৯২১) দেন। গত ১১ আগষ্ট কুমিল্লার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান একই দাবী জানিয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব বরাবর একটি চিঠি (০৫.৪২.১৯০০.০০৮.১৮.০৪৩.২১.১০১৭) দেন।