বাগমারা হাসপাতালে আইসিইউ পরিদর্শনে সিভিল সার্জন

31

স্টাফ রিপোর্টার।। করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের সেবা দিতে অর্থমন্ত্রী আ.হ.ম মুস্তফা কামাল এমপির উদ্যোগে ও আবুল খায়ের গ্রুপের সহযোগিতায় লালমাই উপজেলার বাগমারা ২০ শয্যা হাসপাতালের ২য় তলায় ২টি আইসিইউ শয্যা, ২টি হাইপ্লো নেজাল ক্যানুলা, ৩টি অক্সিজেন কনসেন্ট্রোটর, ১টি বাইপেপ ভেন্টিলেটর, ১টি সিপেপ ভেন্টিলেটর, ১২টি সিলিন্ডার সম্বলিত সেন্ট্রাল অক্সিজেন, ইসিজি ও এক্সরে মেশিন, ১০টি অত্যাধুনিক পেশেন্ট মনিটর, ১টি অটোক্ল্যাভ মেশিন, ১টি ল্যারিংগোস্কোপ, ২টি বৈদ্যুতিক সাকার মেশিন ও ১০টি স্পেশাল শয্যা স্থাপন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে বাগমারা ২০ শয্যা হাসপাতালের আইসিইউ শয্যা পরিদর্শন করেন কুমিল্লার সিভিল সার্জন ডাঃ মীর মোবারক হোসেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন লালমাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মালেক, অর্থমন্ত্রীর এপিএস কেএম সিংহ রতন, বাগমারা ২০ শয্যা হাসপাতালের আরএমও ডাঃ আনোয়ার উল্যাহ, লালমাই সরকারি কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ আবদুল মমিন মজুমদার, বাগমারা উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, লালমাই উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আবদুল মোতালেব, লালমাই ক্লাব’র সভাপতি ও উপজেলা যুবলীগ নেতা কাজী কামরুল হাসান ভ্ট্টুু, উপ-সহকারি কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার মোঃ রবিউল হোসেন, বাগমারা উত্তর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় শর্মা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, বাগমারা উত্তর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আরিফুল ইসলাম রাব্বি প্রমুখ।

অর্থমন্ত্রী আ.হ.ম মুস্তফা কামাল এমপি দুই একদিনের মধ্যে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আইসিইউ এর এই সেবা উদ্বোধন করার কথা রয়েছে। একই দিনে তিনি কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেও একই সেবা উদ্বোধন করার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য ২০১৭ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি প্রয়াত স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ও বর্তমান অর্থমন্ত্রী আ.হ.ম মুস্তফা কামাল এমপি বাগমারা ২০ শয্যা হাসপাতাল উদ্বোধন করেন। তবে দীর্ঘ ৪ বছর অতিবাহিত হলেও জনবল সংকটের কারনে হাসপাতালটিতে ইনডোর সেবা চালু করা সম্ভব হয়নি।