তবুও বন্ধ হচ্ছে না বেলারুশ ফুটবল লীগ

235

করোনা ভাইরাসের জেরে বিপর্যস্ত গোটা ইউরোপ। বেলারুশে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫১ জন। যাদের মধ্যে ৪ জনের মৃত্যুর সংবাদ নিশ্চিত করেছে দেশটির স্বাস্থ্য বিভাগ। এমন পরিস্থিতিতে ফুটবল লীগ চালু রাখায় সমালোচনার মুখে পড়েছে বেলারুশ ফুটবল ফেডারেশন। বেলারুশ সরকার ক্রীড়াঙ্গনের দেশি-বিদেশি সব ইভেন্ট ৬ই এপ্রিল পর্যন্ত স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছে। এর পরেও বেলারুশ লীগ বন্ধ হচ্ছে না। ফেডারেশনের সেক্রেটারি জেনারেল সার্জেই জারদেৎস্কি জানিয়েছেন, ঘরোয়া লীগ চালু রাখবেন তারা।

সংবাদমাধ্যম ইএসপিএনকে তিনি বলেন, ‘আমরা প্রত্যেক মুহূর্তের পরিস্থিতি নজরে রাখছি। স্বাস্থ্য সুরক্ষা ব্যবস্থার ওপর পূর্ণ আস্থা আছে আমাদের।

লীগ বন্ধ রাখার কোনো কারণ দেখছি না। আমরা বুঝতে পারছি কয়েকটি দেশের পরিস্থিতি খুব মারাত্মক। কিন্তু বেলারুশের স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে বুঝতে পোরেছি, এই মুহূর্তে আমাদের লীগ চালিয়ে নেয়া যাবে।’

এর আগে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে বলা হয়, অন্যান্য দেশে সব ধরনের খেলাধুলা বন্ধ থাকায় জনপ্রিয়তা বেড়ে গেছে বেলারুশিয়ান ফুটবল লীগের। আর এ সুযোগটা দারুণভাবে কাজে লাগাচ্ছে আয়োজকরা। দর্শকপ্রিয়তার কারণে বেলারুশ ফুটবল লীগ নতুন দশটি সম্প্রচার চুক্তি স্বাক্ষর করেছে! রাশিয়া, ইসরায়েল, ভারতসহ দশটি দেশের স্পোর্টস নেটওয়ার্ক কিনেছে লীগের সম্প্রচার স্বত্ব।

বেলারুশের ফুটবল সম্পর্ক ফুটবলপ্রেমীদের ধারণা রয়েছে সামান্যই। বাতে বরিসভ ও ডায়নামো মিনস্ক উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ও ইউরোপা লীগে অংশ নিয়েছে বেশ কয়েকবার। এই দুই দল বাদে বেলারুশিয়ান লীগের বাকি ক্লাবগুলো অচেনা। হঠাৎ সব দেশের খেলাধুলা থেমে যাওয়াতে উপায় না থাকায় ফুটবলপ্রেমীরা মজেছেন অচেনা বেলারুশের ফুটবলে।